Breaking News
Home / আইন ও আদালত / পলাশবাড়ীতে মিথ্যা ও হয়রানীমূলক হত্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

পলাশবাড়ীতে মিথ্যা ও হয়রানীমূলক হত্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

আল কাদরী কিবরীয়া সবুজ (গাইবান্ধা) সংবাদদাতা
মিথ্যা ও হয়রানী মূলক হত্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ীতে ভুক্তভোগী পরিবারের আয়োজনে ২২ অক্টোবর মঙ্গলবার জনাকীর্ন এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
গাইবান্ধা জেলার সাদুল্যাপুরের বাসিন্দা পলাশবাড়ী উপজেলার দুর্গাপুর মসজিদের পেশ ইমাম হত্যা মামলার আসামী শাহারুল মন্ডলের মা তাহেরা বেগম তার নিজ বসতবাড়ীতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। তার পক্ষে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন শাহারুল মন্ডলের ছোট ভাই ফরহাদ হোসেন মন্ডল।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, গত ১৯ অক্টোবর- ২০১৯, সকাল ১১টায় সাদুল্লাপুর উপজেলার গোবিন্দরায় দেবত্তর এলাকার একটি আম গাছ হতে ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় আবুল কালাম আজাদ নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় শাহারুল ইসলামসহ ৩ জনকে আসামী করে নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে হয়রানী মূলক একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে। আপনারা নিশ্চয়ই জানেন, সাহারুল মন্ডল নম্র-ভদ্র, একজন ব্যবসায়ী, হাট কালেকটর ও উদ্যোক্তা, কালীবাড়ী হাটে তার একটি গার্মেন্টেস্-এর দোকান রয়েছে। এছাড়াও সে কালীবাড়ী কাঁচামাল হাটের একজন নিয়মিত কালেকটর, পাশাপাশি একজন উদ্যোক্তা এছাড়াও তার ছেলের নিজস্ব একটি গরু ও ছাগলের খামার রয়েছে। সম্পুর্ণ সৎ উপার্জনের মধ্য দিয়ে আমার ছেলে ব্যবসা-বানিজ্য পরিচালনা করে আসছিল। লিখিত বক্তব্যে আরো বলা হয় নিহত ইমাম আবুল কালাম আজাদ ধার্মিক একজন মানুষ ছিলেন। সেই সুবাদে আমার ছেলের সাথে বন্ধুত্বের সুবাদে তিনি ৫ হাজার টাকা ধার স্বরূপ গ্রহণ করেন। দীর্ঘদিন টাকা প্রদান না করায় আমার ছেলে তার নিকট পাওনা টাকার জন্য ২দিন তার বাড়ী গিয়ে তাগিদ দিয়ে আসে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৯ অক্টোবর ২০১৯ আম গাছ থেকে ফাঁসিতে ঝুলানো অবস্থায় আবুল কালাম আজাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এঘটনায় নিহতের পরিবার সম্পুর্ণ পরিকল্পিত ভাবে আমার ছেলে শাহারুলকে আসামী করে একটি হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করে।
আমি ও আমরা নিজেও চাই রহস্যজনক এই হত্যাকান্ডের ঘটনার সুস্থ বিচার হোক। পুলিশ প্রশাসন সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার রহস্য উদঘাটন করুক।
পাশাপাশি আপনাদের মাধ্যমে আমার ছেলের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জন্য সংশ্লিষ্ট পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

উল্লেখ্য, গত ১৯ অক্টোবর শনিবার সকালে মসজিদের ইমাম আবুল কালাম আজাদের সাদুল্যাপুর উপজেলার গোবিন্দরায় দেবত্তর এলাকার একটি আম গাছ হতে ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় সাদুল্যাপুর থানায় ৩ জন কে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা ও উপজেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …