Breaking News
Home / সারাদেশ / বরিশাল / পটুয়াখালী / গলাচিপায় জাতীয় গনহত্যা দিবস পালিত

গলাচিপায় জাতীয় গনহত্যা দিবস পালিত

জসিম উদ্দিন, স্টাফ রিপোর্টার
পটুয়াখালীর গলাচিপায় উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা আওয়ামী লীগ ভিন্ন ভিন্ন ভাবে জাতীয় গনহত্যা দিবস ও আলোকচিত্র প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। সোমবার সকাল ১০ টায় গলাচিপা উপজেলা হলরুমে উপজেলা প্রশাসন এর উদ্যোগে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও বেলা ১১ টায় উপজেলা আওয়ামী লীগ এর উদ্যোগে উপজেলা আওয়ামী ভবনে উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক সন্তোষ দের সভাপতিত্বে ১৯৭১ এর ২৫ শে মার্চ পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর নারকীয় গনহত্যা সম্পর্কে আলোচনা সভা ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী আয়োজন করা হয়। আলোচনায় উঠে আসে ১৯৭১ সালের ২৫ শে মার্চে রাত সাড়ে ১১ টায় পরিচালিত “অপারেশন সার্চলাইট ” এর নামে যে নারকীয় হত্যাযজ্ঞ চালানো হয় তার পূর্ন বিবরন তুলে ধরা হয়। পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী মার্চের প্রথম সপ্তাহ থেকেই অপারেশন চালানোর জন্য ৩রা মার্চ এম ভি সোয়াত যুদ্ধ জাহাজ অস্ত্র-রসদ সহ বাংলাদেশে আসে। ১৫ মার্চ থেকে ২৪ মার্চ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে আলোচনার ভান করে পাকিস্তানি বাহিনী তলে তলে অপারেশন এর প্রস্তুতি চালিয়ে যান। ২৫ মার্চ রাতের অপারেশনে ঢাকার দায়িত্ব দেয়া হয় মেজর জেনারেল রাও ফরমানকে। টার্গেট পিলখানা ইপিয়ার হেডকোয়াটার, রাজারবাগ পুলিশ লাইন, ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয় ও প্রকৌশল বিশ্ব বিদ্যালয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে গ্রেফতার। টেলিফোন,রেডিও, ষ্টেড ব্যাংক নিয়ন্ত্রন, আওয়ামী নেতাদের গ্রেফতার ও যাতায়াত ব্যাবস্থার নিয়ন্ত্রন। রাজশাহী, খুলনা, যশোর, রংপুর, সৈয়দপুর, কুমিল্লা, সেনাবাহিনী ইপিয়ার, আনসার, পুলিশের বাঙালী পুলিশ সদস্য নিয়ন্ত্রন। ঢাকার বাহিরে দায়িত্ব দেয়া হয় মেজর জেনারেল খাদিম হোসেন রাজাকে আর সার্বিক তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে লেঃ জেনারেল টিক্কা খান। সর্ব প্রথম আক্রমন চালানো হয়, ঢাকা সেনানিবাস থেকে রাস্তায় ঢাকার ফার্মগেটে মুক্তিকামীদের মিছিলে। এর পরে ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলে আক্রমন চালিয়ে ১০ জন শিক্ষক ও ৩০ জন ছাত্র- ছাত্রীকে হত্যা করে। উক্ত অভিযানে শুধু মাত্র ঢাকাতে ৭ থেকে ৮ হাজার মানুষকে হত্যা করা হয়। ২৬ মার্চের প্রথম ভাগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার ঘোষনা দেন। এরপরে রাত দেরটার সময় তাকে গ্রেফতার করা হয়। ২৫ শে মার্চ রাতে হাজার হাজার নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হয়। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা প্রকৌশলী মো.আতিকুর রহমান, উপজেলা কৃষি অফিসার এ আর এম সাইফুল্লাহ্, উপজেলা পল্লী উন্নয়ন অফিসার মো. মাহবুব রহমান, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো.গোলাম মোস্তফা,প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. মিজানুর রহমান, গলাচিপা সরকারী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নিজাম উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মস্তফা টিটো, সহ সভাপতি হাজী মো. মজিবর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মু. শাহিন শাহ্, গলাচিপা প্রেসক্লাব সভাপতি খালিদ হোসেন মিল্টন সহ উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা- কর্মচারী, উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, আনসার- ভিডিপি সদস্য প্রমুখ।

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …