Breaking News
Home / সারাদেশ / বরিশাল / পটুয়াখালী / গলাচিপায় দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে উপজেলা নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা

গলাচিপায় দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে উপজেলা নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা

জসিম উদ্দিন, ষ্টাফ রিপোর্টার 
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেষ হতে না হতেই আর একটি নির্বাচনী উত্তাপ কড়া নাড়ছে দরজায় , আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন-২০১৯ ইং ফেব্রুয়ারীতে তফশিল ও নির্বাচন অনুষ্ঠান মার্চ মাসে হওয়ার কথা রয়েছে। গলাচিপা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর ছড়াছড়ি। সম্ভাব্য প্রার্থীদের তৃনমূল নেতৃবৃন্দের সাথে পুরোদোমে প্রচার কাজে ব্যাস্ততা লক্ষ্য করা গেছে, তৃনমূল নেতৃবৃন্দের সমর্থন আদায়ের জন্য। অপরদিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরে গলাচিপা উপজেলা বিএনপির ভিতরে হতাশা লক্ষ্য করা গেছে। বিএনপি উপজেলা নির্বাচনে অংশগ্রহন করবে কিনা সেটা নিয়ে এখনও সংশয় রয়ে গেছে। উপজেলা প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর ১ বার জাতীয় পার্টির প্রার্থী বিজয়ী ছাড়া অন্য যে কবার নির্বাচন হয়েছে মূলতঃ বিএনপির শক্ত প্রতিদ্বন্ধিতার মাঝে প্রত্যেকবারই আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয়ী হয়েছে। এ বার বিএনপি চায় এ উপজেলায় বিজয়ী হতে আর আওয়ামী লীগ চায় ধরে রাখতে। এ উপজেলায় সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে আলোচনা ও গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, আওয়ামী লীগ থেকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে, ১/ মো. শামছুজ্জামান লিকন- বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম- সাধারন সম্পাদক, ২/মো. হারুন- অর-রশীদ- সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি, ৩/ মো. শাহীন শাহ্ – সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ তথ্য ও গভেষনা বিষয়ক সম্পাদক কেন্দ্রীয় উপ- কমিটি, সভাপতি ঢাকাস্হ গলাচিপা- দশমিনা আওয়ামী যুব ঐক্য ফ্রন্ট ও গলাচিপা উপজেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক, ৪/ মো. মানিক মিয়া- সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও গলাচিপা উপজেলা আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য, ৫/ মো. এ্যাড.শামীম মিয়া- গলাচিপা উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি, ৬/ মো. শওকত হোসেন বুলু – সদস্য কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ উপ কমিটি, ৭/ মো. আরিফুর রহমান টিটো- সহ-সাধারন সম্পাদক স্বেচ্ছা সেবক লীগ দক্ষিন, ৮/ মো. মতিয়ার রহমান- বর্তমান গলাচিপা উপজেলা ভাইস্ চেয়ারম্যান, ৯/ মো. মেহেদী হাসান জুয়েল গাজী- যুগ্ম- সাধারন সম্পাদক গলাচিপা উপজেলা আওয়ামী লীগ, ১০/ মো. আবিদ হোসেন রুবেল- সাধারন সম্পাদক গলাচিপা পৌর আওয়ামী লীগ। এ ছাড়া উপজেলা ভাইস্ চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ থেকে, ১/ ইঞ্জিনিয়ার কাওসার নাঈম রেজা শুভ্র, বি এস সি ইঞ্জিনিয়ার চট্টগ্রাম গ্যাস প্রকল্প, ২/ তপন বিশ্বাস- উপজেলা আওয়ামীগ।  বিএনপির পক্ষ থেকে যদিও কোন প্রকার নির্বাচনী তোড়জোড় লক্ষ্য করা যায়নি। তারপরও বিএনপির একটি সূত্রে জানা গেছে, যদি কেন্দ্রীয় পর্যায় থেকে বিএনপির নির্বাচনে  অংশগ্রহন করার সিদ্ধান্ত আসে তাহলে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে, ১/ হাজী মো.আঃ ছত্তার হাওলাদার – উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সাবেক আমখোলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, ২/ মো.জাহাঙ্গীর হোসেন- উপজেলা বিএনপি সাধারন সম্পাদক ও সাবেক গজালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, ৩/ মো. ফজলুর রহমান সাজু- উপজেলা বিএনপি সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান। আওয়ামী লীগ এর সম্ভাব্য প্রার্থীদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে তারা সবাই আশাবাদী দলীয় নমিনেশন পাওয়ার  ব্যাপারে। অপর দিকে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীদের সাথে আলোচনা করে জানা গেছে তাদের এখনও নির্বাচনের ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত হয়নি, যতক্ষন পর্যন্ত কেন্দ্রীয় পর্যায় থেকে সিদ্ধান্ত না আসে সে পর্যন্ত কোন মন্তব্য করতে রাজি নন। যদি কেন্দ্র থেকে সিদ্ধান্ত আসে তারপরে প্রার্থী হবেন কিনা তখন বলবেন। দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কার ভাগ্যে জোটে দলীয় নমিনেশন সেটাই এখন দেখার বিষয়। 

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …