Breaking News
Home / আইন ও আদালত / পলাশবাড়ীতে কর‌তোয়া নদীতে অবধৈভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে গ্রেফতার- ১

পলাশবাড়ীতে কর‌তোয়া নদীতে অবধৈভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে গ্রেফতার- ১

আল কাদরী কিবরীয়া সবুজ, গাইবান্ধা সংবাদদাতা
অবৈধভাবে বালু্ উত্তোলন বন্ধের অভিযানের অংশ হিসাবে গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার কর‌তোয়া নদীসহ বিভিন্ন স্থানে অবৈধভাবে বালু উত্তেলে‌নের অ‌ভি‌যো‌গে গতকাল রোববার সকাল ১১ টায় উপজেলার হো‌সেনপুর ইউনিয়নের কর‌তোয়া পাড়ার আমবাগানস্থ এলাকায় উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্টেট আরিফ হোসেন থানা পুলিশের সহযোগীতায় ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে করতোয়া পাড়ার শ্রী শনিন্দ্র নাথ সাহার ছেলে বালু‌খে‌কো কা‌র্ত্তিক চদ্র সাহা (৪০) কে বালু উত্তোলনের সময় হাতে নাতে গ্রেফতার করে। পরে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্টেট ভ্রাম্যমান আদাল‌তের মাধ্যমে কার্তিক চন্দ্র সাহাকে বালু মহল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন, ২০১০ এর ১৫(১) ধারা অনুযায়ী ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ১ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড। অনাদায়ে আরও ১ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড।প্রদান করেন

উল্লেখ্য, কার্তিক চন্দ্র সাহা স্থানীয় প্রভাব খাটিয়ে দীর্ঘ দিন যাবৎ ম্যানেজ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে করতোয়া নদীসহ বিভিন্ন এলাকা হতে মহাউৎসবে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাধের উপর দিয়ে বহন করতো এ সংক্রান্ত একটি নিউজ বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশ হলে । জেলা প্রশাসনের নির্দেশে এ অভিযান পরিচালনা করে বালু খেকো কার্তিক চন্দ্র সাহা কে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে মাস দুয়েক আগে হোসেনপুরস্থ আমবাগানের বন্যা নিয়ন্ত্রন বাধের উপর দিয়ে ট্রাক্টরদ্বারা বালু মাটি আনা নেওয়ার করায় কয়েকটি ট্রাক্টর জব্দ করে বিকল করে দেয় প্রশাসন। এ অভিযানের মাস ক্ষানেক পরে আবারো সেই চক্রে প্রধান কার্তিক বাবু নামক এ বালু খেকো করতোয়া নদী হতে বালু উত্তোলন করে পাহাড়সম উচু করে অবৈধ ভাবে ব্যবসা করে আসছিলো ।

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …