Breaking News
Home / আইন ও আদালত / গলাচিপায় যৌতুকের দায়ে এক সন্তানের জননীকে মারধর

গলাচিপায় যৌতুকের দায়ে এক সন্তানের জননীকে মারধর

সঞ্জিব দাস,গলাচিপা (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা
পটুয়াখালীর গলাচিপায় যৌতুকের দায়ে এক সন্তানের জননী জাহিদা বেগম (১৯) কে মারধর করেছে পাষান্ড স্বামী। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার পানপট্টি ইউয়নের ৪নং ওয়ার্ডে। গত ১০ই আক্টোবর বুধবার সকাল অনুমানিক ১০ টার দিকে পাষান্ড স্বামী মহিবুল্লাহ মোল্লার নিজ বাড়িতে। যৌতুকের টাকা নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে চরাও হয়ে স্বামী স্ত্রীকে মারধর করে। এলাকাবাসী উদ্ধার করে গলাচিপা হাসপাতালে ভর্তি করে। হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার মস্তফা সিকদার বলেন, জাহিদা বেগম এর শরীরে কালো কালো দাগ আছে আমার চিকিৎসা ধীনে ২য় তলায় ২৩ নং বেডে ভর্তি আছে। এ বিষয় জাহিদা বেগম বলেন, আমার একটি পুত্র সন্তান আছে। আমাকে যৌতুকের দায়ে আমার স্বামী প্রাই মারধর করে। আমার বাবার বাড়ি থেকে এপর্যন্ত আমি আমার স্বামীকে অনেক টাকা এনে দিয়েছি কিন্তু আমার স্বামী ভাল না। এ বিষয় নিয়ে জাহিদা বেগম এর বাবা জসিম হাওলাদার বলেন, আমার মেয়েকে ওপ্রাই মারধর করে আমি অনেক সহ্য করেছি এখন আমি আইনের আশ্রায় নেব। জাহিদা বেগম এর স্বামী মহিবুল্লাহ মোল্লার মুঠোফোনে ফোন দিলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। ইউপি সদস্য মঞ্জুর কাছে জানতে চাইলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, ঘটনাটি শুনেছি দুপক্ষকে ডেকে মিমাংসার ব্যবস্থা করব।

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …