Breaking News
Home / আইন ও আদালত / পলাশবাড়ীতে আপন সন্তানের হাতে মা নির্যাতিত

পলাশবাড়ীতে আপন সন্তানের হাতে মা নির্যাতিত

আল কাদরী কিবরীয়া সবুজ, গাইবান্ধা সংবাদদাতা
গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের কড়িআটা গ্রামের মৃত আবু মিয়ার স্ত্রী আম্বিয়া বেগম (৪৫) নিজের ছেলে ও ছেলের বৌয়ের হাতে নির্যাতনের স্বীকার হয়েছেন। এ বিষয়ে সন্তানের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছেন মা।

জানা যায়, গত ৮ বছর আগে স্বামীর মৃত্যুর পর হতে এক মেয়ে এক ছেলে কে নিয়ে দুংখ কষ্টে দিনাতিপাত করে মেয়েকে বিয়ে দেন ও ছেলে রায়হান মিয়া (২৫) কে পাড়াপ্রতিবেশী ডালু মিয়ার কন্যার কে বিয়ে করান । এ বিয়ের পর হতে বিভিন্ন সময়ে মা আম্বিয়া বেগম কে বাড়ী হতে তাড়িয়ে দিতে নানা ভাবে মায়ের সাথে অত্যাচার ও নির্যাতন করতো ছেলে রায়হান ও তার বৌ লাবনী বেগম । গতকাল হতে আজ সকালেও নিজের মাকে শাররিক ভাবে নির্যাতন করে ছেলে রায়হান ও তার বৌ লাবনী তারা শুধু শাররিক নির্যাতন করেই ক্ষান্ত হয়নি ঘরের আসবাসপত্র ভাংচুর করে আঙ্গিনায় ফেলে দেয় মা আম্বিয়া বেগম কে বাড়ী হতে বাহির হয়ে যেতে বলে ।

ছেলে ও ছেলের বৌয়ের নির্যাতনের স্বীকার মা আম্বিয়া বেগম কান্না জড়ানো কন্ঠে জানায় , নিজের ছেলে ও ছেলের বৌয়ে হাতে মার খেয়ে আজ আমি শাররিক ভাবে অসুস্থ তাদের অকথ্য ভাষায় গালাগাল শুনে এজীবন আর রাখার ইচ্ছা হচ্ছে না। নিজের গর্ভে সন্তান আজ আমাকে যে ভাবে মারধর করে আমার ঘরের জিনিস পত্র ভাংচুর করেছে এর আমি শাস্তি চাই আমি থানায় এসেছি ছেলে ও ছেলের বৌয়ের শাস্তির দাবীতে থানায় এসেছি অভিযোগ করতে। স্বামী মারা যাওয়ার পর নিজের বাবার বাড়ী হতে জমিজমা বিক্রি করে এনে ঘরবাড়ী করেছি । কষ্ট করে পরের বাড়ীতে ঝিয়ের কাজ করে ছেলে মেয়েকে মানুষ করেছি সেই ছেলে আজ বৌ পেয়ে আমাকে শাররিক ভাবে নির্যাতন করলো।
স্থানীয় ইউপি সদস্য জানান, ঘটনাটি দুংখ জনক এরকম কুলাংঙ্গার ছেলের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি হোক এটা আমাদের সচেতন মানুষের দাবী।

অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন পলাশবাড়ী থানার ডিউটি অফিসার এ এস আই এনামুল হক ।

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …