Breaking News
Home / আইন ও আদালত / কপোতাক্ষ নদ খনন প্রকল্পের প্রায় ৮০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

কপোতাক্ষ নদ খনন প্রকল্পের প্রায় ৮০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

এসএম হাসান আলী বাচ্চু,তালা (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা:
কপোতাক্ষ নদ খনন প্রকল্পে বরাদ্দকৃত ২৬২ কোটি টাকার মধ্যে ৭৯ লাখ ৮৭ হাজার ৭শত ৬৮ টাকা অনিয়ম, দূর্নীতির মাধ্যমে আত্মসাত করার অভিযোগে ৩ ঠিাকাদার ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৫ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তালা থানায় পৃথক ৩ টি মামলা দায়ের করেছে দুদক।
মামলার বিবরনে প্রকাশ, কপোতাক্ষ নদ খনন প্রকল্পে বরাদ্দকৃত ২৬২ কোটি টাকার মধ্যে টিআরএম প্রকল্পে বরাদ্দকৃত অর্থের মধ্যে ৭৯ লাখ ৮৭ হাজার ৭শ ৬৮ টাকা অনিয়ম , দূর্নীতির মাধ্যমে আতœসাত করার অভিযোগ দুদকের তদন্তে নিশ্চিত হওয়ার পর গত ১৪ আগষ্ট দুদকের উপপরিচালক খুলনা, মোহাম্মদ আবুল হোসেন বাদী হয়ে ১৯৪৭ সালের দূর্নীতি দমন আইনের ৫(২) ক্ষমতাবলে ১০৯/৪০৯/৪২০ ধারায় তালা থানায় পৃথক ৩ টি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ৫,৬.৭ তারিখ ১৪.০৮.২০১৮।
উল্লিখিত মামলার আসামীরা হলেন, যশোর ইলেকট্রিক হাউসের মালিক লেবুতলার বাসিন্দা ঠিকারার আব্দুল মান্নান ,কেশবপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাবেক উপ-সহকারি প্রকৌশলী রংপুরের পীরগাছা উপজেলার বাসিন্দা রফিকুল ইসলাম,পানি উন্নয়ন বোর্ড যশোরের সাবেক উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী বর্তমান নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ শফিকুল ইসলাম,পানি উন্নয়ন বোর্ড যশোরের সাবেক নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মশিউর রহমান,খুলনার ঠিকাদার আলিম আল-রাজি,পানি উন্নয়ন বোর্ড কেশবপুরের সাবেক উপ-সহকারি প্রকৌশলী ওবাদুল হক মল্লিক,পানি উন্নয়ন বোর্ড কেশবপুরের বর্তমান উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ মোতালেব, যশোর সরকারি মহিলা কলেজ রোডের বাসিন্দা ঠিকাদার গোলাম রেজা দুলু।
মামলার বিবরনে কপোতাক্ষ নদ খনন প্রকল্পের ও টিআরএম প্রকল্পে ১৬ লাখ ৯০ হাজার ৯৯৯ টাকা, একই প্রকল্পে ১৯ লাখ ৬৪ হাজার ২২৪ টাকা এবং ৩৬ লাখ ৩২ হাজার ৫৪৫ টাকা আতœসাতের সুনিদ্দিষ্ট তথ্যের বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে।

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …