Breaking News
Home / আইন ও আদালত / প্রেমের ফাঁদে ফেলে প্রতারণা

প্রেমের ফাঁদে ফেলে প্রতারণা

মো. নাসির উদ্দিন, গলাচিপা (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা :
পটুয়াখালী গলাচিপা উপজেলায় আমখোলা ইউনিয়নের বাসিন্দা মোঃ সেলিম সিকদারের ছেলে মোঃ মিরাজুর ইসলাম মিরাজ (২৮) প্রেমের ফাঁদে ফেলে মোসাঃ সোনিয়া আক্তার নুপুরের সাথে স্বামী-স্ত্রী সম্পর্ক গড়ে তুলে মিরাজ। বিবাহ না করে প্রেমের প্রতারণা করার তথ্য পাওয়া যায়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় ভিকটিম নুপুর আক্তার হলেন, মোঃ শাহ আলম-এর মেয়ে তিনি গলাচিপা উপজেলার বোয়ালিয়া গ্রামের পক্ষিয়া নামক স্থানের বাসিন্দা। ভিকটিম নুপুরের কাছ থেকে এ তথ্য পাওয়া যায়। মিরাজের সাথে তার একটি বিবাহ অনুষ্ঠানে পরিচয় হয়। একপর্যায়ে কথার তাদের মাধ্যমে ভালবাসার এবং গভীর সম্পর্কে দু’জনই আবদ্ধ হয়। মিরাজের পরিবারের সকলেই বিষয়টি জানেন বলে নুপুর জানান। মিরাজ তাকে নিয়ে পটুয়াখালী সবুজবাগ আবাসিক হোটেল সাফারি এবং তার বন্ধুদের বাসায় স্বামী-স্ত্রী রূপে রাত্রী যাপন করেন বলে নুপুর জানান। নুপুর আরো বলেন, মিরাজকে বিবাহের কাবিন রেজিষ্টার করতে বললে সে তাকে স্ত্রী হিসাবে অস্বীকার করে বলে জানান নুপুর। তখন মিরাজের প্রতারণার চোখ খুলে যায়। এ বিষয়ে মিরাজের বাবা মোঃ সেলিম সিকদারের কাছে জানতে চাইলে তিনি পুরো ঘটনাটি ভিত্তিহীন ও মিথ্যা বলে তথ্য দেন। মোঃ সেলিমের মেয়ে তার বান্ধবী এক বিবাহের অনুষ্ঠানে তার মেয়ের সাথে পরিচয় হয় নুপুরের। সেখান থেকে তার বাসায় মাঝে মধ্যে আসতো মিরাজের বোন। মিরাজের বোন জানান তার ভাইয়ের সাথে সম্পর্ক ছিল। নুপুর প্রকৃত বিচার পাওয়ার আশায় মানুষের কাছে কাছে ঘুরে বেড়াচ্ছে। কোন কুল কিনারা না পেয়ে পটুয়াখালী বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ১ম আমলী আদালতে ৪৯৩ দন্ড বিধিতে আবেদন জানান। যার মামলা নম্বর: সি, আর ২০৩/২০১৮, তারিখ: ২৬/০২/২০১৮ ইং।

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …