Breaking News
Home / আইন ও আদালত / গলাচিপায় শ্বশুর বাড়ি থেকে লাশ হয়ে ফিরলেন মামুন

গলাচিপায় শ্বশুর বাড়ি থেকে লাশ হয়ে ফিরলেন মামুন

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী)
পটুয়াখালী গলাচিপা উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নে ছোট গাবুয়া গ্রামে ০৩ নং ওয়ার্ডে হাসেম সিকদারের ছেলে আল মামুন সিকদার (২৬) তার শ্বশুড়ের ঘরের সামনে পেয়ারা গাছের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের ছোট গাবুয়া গ্রামে মামুন সিকদারের শ্বশুর বাড়িতে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে। শুক্রবার ভোরে সার্কেল এএসপি হাফিজুর রহমান, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জাহিদ হোসেন ও তদন্ত অফিসার সাইদুর রহমান, এস আই জাকারিয়া ও এস আই ইব্রাহিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গোলখালী ইউনিয়নের ছোট গাবুয়া গ্রামের মহিউদ্দিন হুজুরের মেয়ে নাজমা বেগম (২২) এর সাথে একই এলাকার হাশেম সিকদারের ছেলে মামুন সিকদারের ৭ বছর পূর্বে বিবাহ হয়। তাদের ঘরে ইয়াসির নোমান নামের তিন বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। নিহতের বাবা হাশেম সিকদার জানান, মামুন ২০ থেকে ২৫ দিন আগে শ্বশুর বাড়ি বেড়াতে যায়। আমার ছেলে কখনো আত্মহত্যা করতে পারে না। তার শ্বশুর বাড়ির লোকেরা তাকে হত্যা করে গাছের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে। পুত্রবধু নাজমা সবসময় বিভিন্ন লোকজনের সাথে কথা বলত। মামুনের শরীরের নানা স্থানে আঘাতের দাগ রয়েছে। এমনকি গোপনাঙ্গে আঘাতের দাগ দেখা গেছে। মামুন কালুখালী বাজারে কসমেটিকসের ব্যবসা করত। এ ব্যাপারে গলাচিপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জাহিদ হোসেন জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালীর মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট ছাড়া কিছুই বলা যাচ্ছে না।

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …