Breaking News
Home / ধর্ম / সোনার চরে অস্থায়ী জামে মসজিদ

সোনার চরে অস্থায়ী জামে মসজিদ

আল আমিন, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)।
গোটা কয়েক বাঁশ, বেত, হোগলাপাতা আর ত্রিফলার সাহায্যে নির্মাণ করা হয়েছে অস্থায়ী এ মসজিদটি। বছরের ৬ মাসের জন্য নির্মিত হয়ে থাকে। আর মৌসুম শেষে জেলেদের ফিরে চলায় বিলিন হয়ে যায় । আর এভাবেই সাগরকন্যা খ্যাত জেলা পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার বিচ্ছিন্নদ্বীপ সোনারচরের শুটকি পল্লীতে মুসলিম ধর্মালম্বী মৌসুমী জেলেরা স্বেচ্ছাশ্রমে অস্থায়ী জামে মসজিদ নির্মাণ করে থাকেন।
জানা গেছে, বছরের শুরুতে উপকূলীয় বিভিন্ন জেলার শুটকি জেলে ও আড়ৎদারে উপস্থিতি মেলে সোনারচর। এসব জেলেরা এখানে এসে গোলপাতা, হোগলাপাতা,বাঁশ, কাঠের সাহায্যে অস্থায়ী আবাসন নির্মাণ করে থাকেন। এখানে বসবাসরত জেলেদের অধিকাংশ মুসলিম ধর্মালম্বী হওয়ায় এক সাথে জামায়াতে নামাজ আদায় করা জন্য অস্থায়ী জামে মসজিদ নির্মান করেন।
জেলে মোঃ জাকির হোসেন বলেন,শীতের সময় আমরা সোনার চর থেকে মাছ ধরি রাতে এখানেই থাকি। তাই নামাজ পড়ার জন্য ভাল কোন জায়গা না থাকার কারনে আমরা সবাই মসজিদ নির্মান করি। বর্ষার সময় আমরা যখন থাকিনা ,তখন মসজিদ ও থাকেনা ।
মোঃ দেলোয়ার মাঝি বলেন,শুকনার সময় ছয় মাস আমরা সোনার চর মাছের ব্যবসা করি তাই দিন রাত সব সময় এখানে থাকি। নামাজ পড়ার জন্য এই মসজিদ বানিয়েছি ।
এ ব্যাপারে চরমোন্তাজ ইউনিয়ানের চেয়ারম্যান মোঃ হানিফ মিঞা বলেন ,আমি এই মসজিদের কথাটা শুনেছে তবে খবর নিয়া দেখবো।

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …