Breaking News
Home / আইন ও আদালত / চরমোন্তাজে দুই ব্যবসায়ীকে মেরে দেড় লাখ টাকা ছিনতাই

চরমোন্তাজে দুই ব্যবসায়ীকে মেরে দেড় লাখ টাকা ছিনতাই

নিয়ামুর রশিদ শিহাব, বিশেষ প্রতিনিধি
বেকারীর কারখানার পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে দুই ব্যবসায়ীকে মারধর করে দেড় লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে সন্ত্রাসীরা। চরমোন্তাজ এলাকার লক্ষীর চরের আশ্রয়ন ঘরের সামনে বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।সন্ত্রাসীরা চিকিৎসা পর্যন্ত করতে দেয়নি বলে গুরুতর আহত ব্যবসায়ী শাহীনকে। শুক্রবার স্থানীয় লোকদের সহযোগিতায় তাকে গলাচিপা গলাচিপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। আইনের আশ্রয় যাবেন বলে ব্যবসায়ী কামরুল জানান।
এলাকাবাসী জানায়, চরমোন্তাজ এলাকায় স্লুইজ বাজারে বেকারীর কারখানার মাধ্যমে কামরুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসা করে আসছে। বৃহস্পতি বার শ্যালক মো: শাহিনকে সাথে নিয়ে চর লক্ষীর দোকানদার জহির হাংএর কাছে কারখানার বকেয়া ৮২হাজার টাকা চাইতে গেলে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায় জহির হাং আত্মীয় মির কাসেম ও রুবেলের নেতৃত্বে মামুন ও সোহেলসহ সন্ত্রাসীরা দুই ব্যবসায়ীকে মারধর করে ও কামরুলের সাথে থাকা ধানের বেচা টাকা ও আদায়কৃতসহ দেড় লক্ষ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায় বলে তারা অভিযোগ তোলেন।এতে মো: শাহিন গুরুতর আহত হয়। এ সময় তাদেরকে আটকে রাখা হয়। স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে। কর্তব্যরত চিকিৎসক গোলাম মোস্তফা জানান, তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ফুলা জখম রয়েছে। চর লক্ষীর আশ্রয়ন প্রকল্পে বসবাসকারী লোকজন সব সময় দলবদ্ধ ভাবে অপরাধের সাথে জড়িত থাকে বলে একাধিক অভিযোগ রয়েছে। জানা গেছে, মির কাসেমের বিরুদ্ধে আশ্রয়ন প্রকল্পের টিন আত্মসাতের অভিযোগসহ একাধিক মামলা রয়েছে।
এ ব্যপারে রাঙ্গাবালী থানার অফিসার ইন চার্জ মিলন কৃষ্ণ মিত্র জানান, অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে ।

Check Also

রাঙ্গাবালীতে করোনা ভাইরাস-জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ

মাহামুদ হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় করোনা-ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করা হয় …